অ্যামপ্লিফায়ার কি? Amplifier কত প্রকার ও কি কি? অ্যামপ্লিফায়ার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা - ব্লগস ৭১

What is amplifier
What is amplifier

Amplifier কি? 



Amplifier হলো এমন একটি Electronic  ডিভাইস যা কোন Electronic সিগন্যালের ওয়েবশেপ ও Frequency  অপরিবর্তিত রেখে  বিবর্ধিত বা অ্যামপ্লিচিউড বৃদ্ধি করে। অ্যামপ্লিফায়ার এর প্রধান কাজ হলো দুর্বল  signal কে  শক্তিশালী করা। এছাড়া এটি বিভিন্ন Electronic  সার্কিটে বিভিন্ন ফাংশনের জন্য বহুল ব্যবহৃত একটি মডিউল।

চেষ্টা করবো পরবর্তী পোস্টে Transistor  ব্যবহার করে অ্যামপ্লিফায়ার ডিজাইন করার কৌশল নিয়ে আলোচনা করার। এর পূর্বে কিছু বেসিক Information  শেয়ার করছি। আপনারা যারা একটু Advance  লেভেল থেকে শুরু করতে চাচ্ছেন, তারাও এখান থেকে শুরু করতে পারেন।

চিত্রে একটি অ্যামপ্লিফায়ারের সাধারণ প্রতীক দেখানো হলো।

চিত্র- অ্যামপ্লিফায়ার প্রতীক
চিত্র- অ্যামপ্লিফায়ার প্রতীক 



আসলে এই চিত্র হতে তেমন কোনো বিস্তারিত ব্যাখ্যা বোঝা যায় না। তবে input এবং output এর একটি প্রবাহ চিত্র সহজে বোঝা যায়।

Operation  মুডের ওপর ভিত্তি করে অ্যামপ্লিফায়ারকে বিভিন্ন শ্রেণীতে বিভক্ত করা যায়।

যা নিচে তুলে ধরেছি -

(ক) ফ্রিকুয়েন্সি হিসেবে:


  • অডিও ফ্রিকুয়েন্সি Amplifier 
  • ভিডিও ফ্রিকুয়েন্সি Amplifier
  • রেডিও ফ্রিকুয়েন্সি অ্যামপ্লিফায়ার।ইন্টারমিডিয়েট ফ্রিকুয়েন্সি Amplifier
  • ইউএইচএফ বা ভিএইচএফ Amplifier
ডায়রেক্ট ফ্রিকুয়েন্সি Amplifier

(খ) বায়াসিং হিসেবে:


  • ক্লাস-এ Amplifier
  • ক্লাস-বি Amplifier
  • ক্লাস-সি Amplifier
  • ক্লাস-এবি Amplifier


(গ) কাপলিং হিসেবে:



  • আরসি কাপল Amplifier
  • এল সি কাপল অ্যামপ্লিফায়ার
  • ট্রান্সফর্মার কাপল Amplifier
  • ডাইরেক্ট কাপল Amplifier.


(ঘ) লোড এর প্রকৃতির ভিত্তিতে



  • আনটিউন্ড Amplifier
  • টিউন্ড Amplifier.

(ঙ) Input সিগন্যালের ধরন হিসেবে:



  • স্মল সিগন্যাল Amplifier
  • লার্জ সিগন্যাল Amplifier

(চ) আউটপুট হিসেবে:



  • ভোল্টেজ অ্যামপ্লিফায়ার
  • কারেন্ট Amplifier
  • পাওয়ার অ্যামপ্লিফায়ার।


ভোল্টেজ অ্যামপ্লিফায়ার:


যে অ্যামপ্লিফায়ারের সাহায্যে কোন Low সিগন্যালের ভোল্টেজকে পরিবর্তন করা হয় তাকে voltage  অ্যামপ্লিফায়ার বলে।
এটি মূলত এক ধরণের Small Signal  অ্যামপ্লিফায়ার।

পাওয়ার অ্যামপ্লিফায়ার:


উচ্চ মানের Power Amplification  এর জন্য যে অ্যামপ্লিফায়ার ব্যবহৃত হয় তাকে পাওয়ার অ্যামপ্লিফায়ার বলে। এই ধরনের অ্যামপ্লিফায়ার লার্জ সিগনাল অ্যামপ্লিফায়ার হিসেবেও পরিচিত।

ক্লাস-এ অ্যামপ্লিফায়ার:


যে সকল অ্যামপ্লিফায়ার, ইনপুটে প্রদত্ত পূর্ণ সিগন্যালের জন্যই আউটপুট প্রদান করে তাকে ক্লাস-এ অ্যামপ্লিফায়ার বলে। অর্থাৎ ইনপুটে প্রদত্ত সিগন্যালের অবিকল সিগন্যাল বিবর্ধিত আকারে আউটপুটে পাওয়া যায়। এ অ্যামপ্লিফায়ার গুলো এমনভাবে বায়াস করা হয় যাতে ইনপুটের কোন অংশ বাদ না পরে। ক্লাস-এ অ্যামপ্লিফায়ারের সর্বোচ্চ দক্ষতা শতকরা ৫০ ভাগ।

ক্লাস-বি অ্যামপ্লিফায়ার:


যে সকল অ্যামপ্লিফায়ার ইনপুটে প্রদত্ত সিগন্যালের কেবল মাত্র হাফ সাইকেল পরিবর্তন  করে তাদেরকে  ক্লাস বি অ্যামপ্লিফায়ার বলে। অর্থাৎ ইনপুট প্রদত্ত সিগন্যালের 180 ডিগ্রীর জন্য আউটপুট সিগন্যাল পাওয়া যায়। ক্লাস-বি অ্যামপ্লিফায়ারের দক্ষতা শতকরা ৫০ থেকে ৮০ ভাগ পর্যন্ত হতে পারে।



ক্লাস-সি এমপ্লিফায়ার:


এ অ্যামপ্লিফায়ারের output ইনপুটে প্রদত্ত সিগন্যালের 180° এর চেয়ে কম সময় ধরে পাওয়া যায়। এই অ্যামপ্লিফায়ার ডিজাইন করার সময় এমনভাবে বায়াস করা হয় যাতে, ইনপুটে প্রদত্ত সিগন্যালের কিছু অংশ বাদ পরে। Power অ্যামপ্লিফিকেশনের জন্য এ ধরনের  অ্যামপ্লিফায়ার কখনো ব্যবহার হয় না। তবে টিউন্ড অ্যামপ্লিফায়ার সার্কিট হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

ক্লাস-এবি অ্যামপ্লিফায়ার:


যে অ্যামপ্লিফাইয়ার input এ প্রদত্ত সিগন্যালকে ১৮০ ডিগ্রী অপেক্ষা বেশি কিন্তু 360 ডিগ্রী এর চেয়ে কম সময় ধরে অ্যামপ্লিফাই করে তাকে ক্লাস-এবি অ্যামপ্লিফাইয়ার বলে। ক্লাস-এবি অ্যামপ্লিফাইয়ারের ক্রস ওভার ডিসটরশন কম হয়।


টিউন্ড অ্যামপ্লিফায়ারঃ


যে অ্যামপ্লিফায়ারের মাধ্যমে কোন নির্দিস্ট Frequency  ব্যান্ডের সিগন্যাল অ্যামপ্লিফাই করা হয়ে থাকে তাকে টিউন্ড Amplifier বলে।
বিভিন্ন প্রকার টিউন্ড অ্যামপ্লিফায়ার সম্পর্কে পরবর্তিতে আলোচনা করা হবে।

Post a Comment

0 Comments